কালো দাগকে বিদায় জানান

কালো দাগকে বিদায় জানান

Share on facebook
Share on twitter
Share on linkedin
Share on whatsapp
Share on facebook
Share on twitter
Share on linkedin
Share on whatsapp
Share on facebook
Share on twitter
Share on linkedin
Share on whatsapp
doutzen-kroes-11086-1920x1200

পুজোর সময় অনেকেরই স্লিভলেস বা হাতকাটা টপ‚ কুর্তি পরার ইচ্ছা থাকলেও পরতে লজ্জা পান| কারণটা হল বাহুমূলে কালো দাগ| শেভিং‚ নিয়মিত বডি স্প্র‚ ত্বকের সঙ্গে ত্বকের ঘর্ষণ এ সবের কারণে বাহুমূলের রং গাঢ় হয়ে যায়| তবে চিন্তার কারণ নেই| আজকে রইলো বাহুমূলের কালো দাগ মুছে ফেলার সহজ ঘরোয়া উপায়|

১) লেবু‚ হলুদ ও মধুর প্যাক : এই প্যাক বানাতে লাগবে একটা পাতিলেবু‚ ২ চা চামচ হলুদ বাটা‚ ১চা চামচ ময়দা| একটা কাঁচের বাটিতে সব একসঙ্গে মিশিয়ে নিন| এবার উভয় বাহুমূলে ভাল করে প্যাকটা লাগিয়ে নিন| হালকা করে ৫ মিনিট ম্যাসাজ করুন| এতে ত্বকের ময়লা ও মরা কোষ দূর হবে| ২০-৩০ মিনিট প্যাকটা লাগিয়ে রেখে হাল্কা গরম জলে সুতির কাপড় বা রুমাল ভিজিয়ে পরিষ্কার করুন| প্যাকটা সম্পূর্ণ তোলার পর ঠান্ডা জল দিয়ে ধুয়ে নিন| সপ্তাহে অন্তন তিন দিন এই প্যাক লাগানোর চেষ্টা করুন| কালো দাগ তো দূর হবেই একই সঙ্গে বাহুমূলের খসখসে ভাব ও কমবে|

২) চন্দনের গুঁড়ো ও গোলাপ জল দিয়ে প্যাক : চন্দন ও গোলাপ জলের প্যাক ত্বকের আর্দ্রতা ধরে রাখতে সাহায্য করে| সঙ্গে ত্বকের কালছে ভাব দূর করে| তবে সপ্তাহে চারদিন এই প্যাক লাগাতেই হবে| দু’সপ্তাহের মধ্যে হাতে নাতে ফল পাবেন। একটা কাঁচের বাটিতে ৪ চা চামচ চন্দনের গুঁড়ো নিন| এতে ২চা চামচ গোলাপ জল মিশিয়ে নিন| উভয় বাহুমূলে প্যাকটা লাগিয়ে নিন ভালো করে| সম্পূর্ণ শুকিয়ে গেলে ভিজে সুতির কাপড় দিয়ে প্যাক তুলে ফেলুন|

৩) চিনি ও পাতিলেবুর প্যাক : একটা কাঁচের বাটিতে খানিকটা চিনি আর পাতিলেবুর রস মিশিয়ে নিন| খেয়াল রাখবেন চিনি যেন লেবুর সঙ্গে মেশার পরও একটু দানা দানা থাকে| এইবার উভয় বাহুমূলে এই প্যাকটা লাগান| হাল্কা করে চিনি সম্পূর্ণ গলে যাওয়া অবধি ম্যাসাজ করুন| খানিক ক্ষণ রেখে ঠান্ডা জল দিয়ে ধুয়ে নিন|

৪) বেকিং সোডা ও পাতিলেবুর প্যাক : লেবুর প্রাকৃতিক উপায় কালো দাগ মুছে ফেলতে সাহায্য করে| এই প্যাক নিয়মিত লাগালে অবশ্যই পরিবর্তন দেখতে পাবেন| অল্প পরিমাণে বেকিং সোডা নিয়ে তাতে পাতিলেবুর রস মিশিয়ে একটা পেস্ট বানিয়ে নিন | ২- ৩ মিনিট বাহুমূলে লাগিয়ে ম্যাসাজ করুন| আরও ২ মিনিট রেখে ধুয়ে ফেলুন| সপ্তাহে দু’ থেকে তিন বার এটা করতে পারেন|

নিয়মিত প্যাক লাগানো ছাড়াও হেয়ার রিমুভাল ক্রিমকে না বলতে হবে | হেয়ার রিমুভাল ক্রিমে এমন কিছু ক্ষতিকারক রাসায়নিক পদার্থ থাকে যা বগলের ত্বক কালো করে দেয় | এ ছাড়াও রেজার ব্যবহার করে শেভ করলেও পরবর্তী বারে যখন অবাঞ্ছিত লোম গজায় তখন শক্ত লোম ত্বক কালো করে দেয় | তাই রেজার দিয়ে শেভ না করাই ভাল |

Tags

Share on facebook
Share on twitter
Share on linkedin
Share on whatsapp

Leave a Reply