দু’টি কবিতা

Share on facebook
Share on twitter
Share on linkedin
Share on whatsapp
Share on facebook
Share on twitter
Share on linkedin
Share on whatsapp
Share on facebook
Share on twitter
Share on linkedin
Share on whatsapp
sekhar roy
অলঙ্করণ
অলঙ্করণ

ঝড়

নগরের সীমারেখা পর্যাপ্ত নয় ভেবে
একটা নিরীহ বাঘ হঠাৎই নেচে ওঠে 

ততদিনে কেটে ফেলা প্রতিটি নিয়ম এবং তার অপ্রতিরোধ্য ঘোষণা বরাবর
হাঁটে রাতের তক্ষক 

শব্দের ভেতর পোষমানা নৈঃশব্দ্য
সঞ্চরণশীল ভ্রম ও চেতনা,
আমাদের শরীরের মধ্যে ছেড়ে দেয় দীর্ঘ তিনহাজার কবিতা 

তুমি বাঁক নিতে চাও
গো-শকটে পা ঝুলিয়ে দেখে নিতে চাও নিজের আধপোড়া শব ও ধ্বনি 

শত ভয় সত্ত্বেও শেখাতে পারলে না পূর্বপুরুষের নাম ও ঠিকুজি…

অলৌকিক 

নিরাসক্ত একটা গমের খেত পাখিদের সঙ্গে সমঝোতা করতে শিখিয়েছে
দুহাতে মুঠো করে মেলে দিচ্ছ রোদ
আর নগরের সমস্ত কাকতাড়ুয়া ও তার সম্মোহনী বর্ম
পাহারা দিচ্ছে আনন্দকবচ
রামধনু ততটা প্রাসঙ্গিক নয় ভেবে
তোমার খুলে রাখা বাসি জামা, শহরতলির মিথ্যে পরিচয়
অচল চোখের মতো করে তুলছে দৃশ্য
এসব দৃশ্যে পাপবোধ নেই,
নেই কোনও অনাকাঙ্ক্ষিত মেয়েদের নিরুদ্দেশ সংক্রান্ত খবর!

Tags

শেখর রায়
শেখর রায়
শেখর রায়ের জন্ম কলকাতায়, ষাটের দশকে। বেড়ে ওঠা উত্তাল সত্তরে। ইচ্ছে থাকলেও ফাইন আর্টস নিয়ে পড়াশোনা করা হয়ে ওঠেনি। চাকরির তাগিদে আর্ট কলেজ থেকে অ্যাপ্লায়েড আর্টস নিয়ে স্নাতক। যদিও পরবর্তীকালে ফাইন আর্টসেই তাঁর নামডাক। জলরং, তেলরং, অ্যাক্রিলিক - সব মাধ্যমেই সমান স্বচ্ছন্দ শেখর আশির দশকে ইলাস্ট্রেটর হিসেবে মিডিয়ার চাকরিতে ঢোকেন। ১৯৮৭-তে প্রথম একক প্রদর্শনী অ্যাকাডেমি অফ ফাইন আর্টসে। ছবিতে বারবার উঠে আসে মানবজীবনের একাকীত্ব এবং বিচ্ছিন্নতা, সম্পর্কের অচেনা হয়ে যাওয়া এবং বিষাদ।
Share on facebook
Share on twitter
Share on linkedin
Share on whatsapp

One Response

  1. Both the poems are lively and interesting . Enjoyed .
    Shekhar Roy’s painting are unique , although thinking behind formation of figures are not fully comprehensible.
    Tapan Das

Leave a Reply

-- Advertisements --